Header Border

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ই আগস্ট, ২০২০ ইং | ২২শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (বর্ষাকাল) ২৯°সে

শেখ হাসিনাকে আরো প্রমান করতে হবে

করোনা সনাক্ত হয় না এন্টিবডি কিট দিয়ে, গণস্বাস্থ্য রাজনীতি করেছে

মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, ষ্টাফ রিপোর্টারঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আরো প্রমান করতে হবে করোনা সনাক্ত হয় না এন্টিবডি কিট দিয়ে, গণস্বাস্থ্য রাজনীতি করেছে, বিব্রত করেছে সরকারকে। মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধা আমার কাছে সাত রাজার ধন। সম্মান শ্রদ্ধা ভক্তির কোনো কমতি নাই আমার মনে। এই জাতির জন্য একটি মানচিত্রের অংশ বীরমুক্তিযোদ্ধা। নাসিম, কামাল লোহানী, মাইনুদ্দিন খান বাদল’সহ এক একজন মুক্তিযোদ্ধাকে হারিয়ে জাতি আজ মুরব্বিহীন হতে চলেছে।দোয়া করছি জাফরুল্লাহ চৌধুরীরা হাজার বছর বেঁচে থাকেন। জানিনা আত্মজীবনী কি ভাবে লেখবেন, বাম থাকে শুরু পাকিস্তান ও শেখ হাসিনা সরকারের আনুকুল্য ছাড়া সব সরকারেরটাই গ্রহন করেছেন। এমন কি শেখ হাসিনার আনুকুল্য পেতে ঐক্যফ্রন্টকে নির্বাচনে আনার পরিকল্পনাও জাফরুল্লাহ চৌধুরীর।
শেখ হাসিনা এনজিও নির্ভর রাজনীতির পরিবর্তন আনতে ব্যার্থ হলে খালেদা জিয়ার মত আপনারাও পথ দেখাতে চাইতেন। বহিবিশ্বের কাছে বাঙালী জাতিকে মিসকিন বানিয়ে সাহায্য সহযোগিতা এনে আঙুল ফুলে কলাগাছ হইতেন, পূর্ব অভিজ্ঞতা তাই বলে।
এক সময় ডঃ ইউনুসরা যা করেছেন, এখনো করছেন। শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধা হওয়ার জন্য আপনাকে এমনিতেই সম্মান করে। সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে অশ্লীল কথা বলার অপরাধে বিচার একমাত্র শেখ হাসিনার জন্য হয় নাই, একজন মুক্তিযোদ্ধার সম্মানের কথা বিবেচনা করে, আপনাকে মনে রাখতে হবে। জানিনা আপনি সজ্ঞানে না অজান্ত এন্টিবডি কিট কে সনাক্তকারী বলে জাতিকে মাত্র দুইশত টাকায় পরিহ্মার প্রভোলন দেখিয়েছেন। সরকারকে বিব্রত করেছেন।
গণস্বাস্থ্যের কিট দিয়ে করোনা সনাক্ত ও ভালোও হয়েছেন দাবী, কি জবাব দিবেন জাতির কাছে। শেখ হাসিনা বহিবিশ্বের ভিহ্মার পথ বন্ধ করে দিয়েছে, বাঙালী জাতির জন্য সম্মানের আসন সৃষ্টি করেছেন। রাজনীতি, অর্থনীতি, পররাষ্ট্রনীতির, পরিবেশ পরিস্থিতি, শিল্পনীতি ঔষধনীতির পরিবর্তন আনতে না পারলে, মান্দাত্তার আমলের অনেক ক্যাভাসার তালেরছাল দিয়ে ঔষধ বানিয়ে আমাদেরকে খাইয়েছেন অনেক ক্যানভাসার।
আপনার এন্টিবডি কিট দিয়েও আমরা প্রতারিত হতাম, শেখ হাসিনার ঔষধনীতির যদি উন্নয়ন না হতো। শেখ হাসিনা আর কি ভাবে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিবেন, প্রমান করবেন এই সরকার প্রতিহিংসায় বিশ্বাস করেনা। জাতিকে নিয়ে রাজনীতি করে না। করলে কিটের জন্য অনুমতি, কাঁচামাল আমদানি, কিট গ্রহন ও পরিহ্মার ব্যবস্থা করতেন না। রিপোর্ট দিতে একটু দেরি হয়েছে। সেই সু্যোগও গণস্বাস্থ্যে নিয়েছে। জাতি বিশ্বাস করতে শুরু করেছিল, কিট নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে। হয়েছেও তাই, তবে শেখ হাসিনা নয়, জাফরুল্লাহ চৌধুরীরা শেষ রাজনীতি করেই ছাড়লেন। কি লাভ হয়েছে জানিনা। একজন মুক্তিযোদ্ধার কাছে আশাও করি নাই। লেখকঃ বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব ও রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামলী লীগের সভাপতি জনাব রবিউল আলম।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

শোকের মাস আগস্ট, সব শোকের শেষ আছে, আগস্টের নেই
পাকিস্তানে ধর্ম অবমাননা আইনের বলি হবে আর কতোজন?
কুষ্টিয়া জেলার সকল পুলিশ অফিসারদের নিয়ে পুলিশ সুপার এর ব্রিফিং
জাফলং আসার আগেই নিষিদ্ধ হলেন তাহেরীসহ বিতর্কিত বক্তারা!




আরও খবর







Design & Developed BY Raytahost.com